June 15, 2024, 7:46 pm

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক অনুমোদিত দৈনিক কুষ্টিয়া অনলাইন পোর্টাল
সংবাদ শিরোনাম :
দৌলতদিয়ায় বেড়েছে যাত্রী চাপ, ভোগান্তি নেই যুদ্ধবিরতি/ পুতিনের দুই শর্ত, অপমানকর বললো ইউক্রেন দৌলতদিয়া ঘাট/ যানবাহনের চাপ বেড়েছে, পারাপার স্বাভাবিক কৃষক আলমগীর জানতেই পারলেন না বিএসএফ কেন তাকে বেধরক মারলো ! সঠিক তথ্য দিলে এমপি আনার হত্যাকান্ডে গ্রেফতার আওয়ামী লীগ নেতাদের ছেড়েও দেয়া হতে পারে পরিবারের কোনো না কোনো সদস্যকে হারিয়েছে গাজার ৬০ শতাংশ মানুষ বিদ্যুতের প্রিপেইড মিটার ভোগান্তি/ বিশেষজ্ঞ কমিটি গঠনের নির্দেশ হাইকোর্টের জমে উঠেছে দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলের সর্ববৃহৎ শতবর্ষী ছাগলের হাট এমপি আনার হত্যা/উদ্ধার হাড়-মাংস মানুষের, আনারের কিনা জানতে এখন ডিএনএ কুষ্টিয়ার খোকসায় নদীতে নিখোঁজ স্কুলছাত্রের লাশ উদ্ধার ২৫ ঘন্টা পর

আত্মহত্যা চেষ্টা/ ঢাকা সবোর্চ্চ, কম মেহেরপুরে, আত্মহত্যা প্রবণ জেলার তালিকায় কুষ্টিয়া, ঝিনাইদহ

দৈনিক কুষ্টিয়া অনলাইন/
সারা দেশে গড়ে প্রতিদিন আত্মহত্যার চেষ্টা করেন পাঁচজনেরও বেশি। আগের বছরের তুলনায় গত বছর আত্মহত্যার চেষ্টা বেড়েছে ৬২ শতাংশ। আত্মহত্যাপ্রবণতায় শীর্ষে রয়েছে ঢাকা। এরপর সবচেয়ে বেশি কুমিল্লায়। তবে মেহেরপুরে আত্মহত্যাপ্রবণতা সবচেয়ে কম। আত্মহত্যা চেষ্টা কম হলেও প্রবণ জেলার তালিকায় রয়েছে কুষ্টিয়া ও পাশ্ববর্তী ঝিনাইদহ।
বিশেষজ্ঞদের মতে, আর্থসামাজিক সমস্যা, পারিবারিক সংকটের পাশাপাশি মানসিক চাপ, হতাশা ও নানা ধরনের হেনস্তা থেকে মুক্তি পেতে মানুষের মধ্যে আত্মহত্যাপ্রবণতা বাড়ছে। বছরের শেষ ছয় মাসে আত্মহত্যাপ্রবণতা থাকে সবচেয়ে বেশি।
পুলিশ সদর দপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, ২০২০ সালের জানুয়ারি থেকে ২০২১ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত দুই বছরে সারা দেশে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন ৩ হাজার ৯১৮ জন। এর মধ্যে ২০২০ সালে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন ১ হাজার ৪৯৮ জন। আর গত বছর আত্মহত্যার চেষ্টা করেন ২ হাজার ৪২০ জন। অর্থাৎ ২০২০ সালের তুলনায় গত বছর আত্মহত্যার চেষ্টা বেড়েছে ৬২ শতাংশ। আত্মহত্যার চেষ্টাকারীদের মধ্যে ২ হাজার ২৪৩ জনকে জীবিত উদ্ধার করা গেলেও মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ৬৭৫ জনের।

আত্মহত্যাপ্রবণ জেলাগুলোর মধ্যে শীর্ষে রয়েছে ঢাকা। এ জেলায় গত দুই বছরে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন ২৩২ জন। এর মধ্যে ১১২ জনকে জীবিত উদ্ধার করা গেলেও মৃত্যু হয় ১২০ জনের। দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে কুমিল্লা। এ জেলায় গত দুই বছরে আত্মহত্যা চেষ্টা করেন ১৬৬ জন। জীবিত উদ্ধার ৮০ জন। তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে নারায়ণগঞ্জ জেলা। সেখানে গত দুই বছরে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন ১৫৮ জন। এর মধ্যে বেঁচে গিয়েছেন ৬৫ জন। আত্মহত্যাপ্রবণতায় চতুর্থ অবস্থানে রয়েছে গাজীপুর জেলা। সেখানে গত দুই বছরে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন ১৩৭ জন। জীবিত উদ্ধার হয়েছেন ৭৬ জন। পঞ্চম অবস্থানে থাকা ময়মনসিংহ জেলায় গত দুই বছরে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন ১১৮ জন। জীবিত উদ্ধার ৬২ জন। এছাড়া গত দুই বছরে আত্মহত্যাপ্রবণতায় এগিয়ে থাকা জেলাগুলোর মধ্যে রয়েছে যথাক্রমে চট্টগ্রাম, দিনাজপুর, রংপুর, নীলফামারী ও বগুড়া।
আত্মহত্যা প্রতিরোধের জন্য গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে জাতীয় জরুরি সেবা নম্বর ৯৯৯। এ সেবার দায়িত্বে থাকা পুলিশের অতিরিক্ত ডিআইজি মোহাম্মদ তবারক উল্লাহ। তিনি বলেন, আত্মহত্যা-সংক্রান্ত ফোনকলগুলো অত্যধিক গুরুত্বের সঙ্গে দেখা হয়। সংশ্লিষ্ট থানাকে দ্রুত পদক্ষেপ নেয়ার জন্য নির্দেশনা দেয়া হয়। এরই পরিপ্রেক্ষিতে সম্প্রতি বেশ কয়েকটি আত্মহত্যার ঘটনা প্রতিরোধ করা সম্ভব হয়েছে। আগামীতে এ সেবা কার্যক্রম আরো গতিশীল করতে কলারের লোকেশন যাচাইয়ের জন্য উন্নত প্রযুক্তি ব্যবহারের পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে।
পুলিশের তথ্য অনুযায়ী সবচেয়ে কম আত্মহত্যার চেষ্টা হয়েছে মেহেরপুর জেলায়। সেখানে গত দুই বছরে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন তিনজন। দুজনকে জীবিত উদ্ধার করা গেলেও মৃত্যু হয় একজনের। যদিও মেহেরপুরের পার্শ্ববর্তী জেলা কুষ্টিয়া ও ঝিনাইদহ রয়েছে আত্মহত্যাপ্রবণতায় এগিয়ে থাকা জেলার তালিকায়। কম আত্মহত্যাপ্রবণ জেলাগুলোর মধ্যে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে রাঙ্গামাটি। এ জেলায় গত দুই বছরে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন চারজন। একজন মারা গেলেও বেঁচে গিয়েছেন তিনজন। তৃতীয় অবস্থানে থাকা বান্দরবান জেলায় আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন চারজন। এর মধ্যে তিনজনই জীবিত উদ্ধার হয়েছেন। চতুর্থ অবস্থানে থাকা খাগড়াছড়ি জেলায় আত্মহত্যা চেষ্টা করেন পাঁচজন। তবে শেষ পর্যন্ত মারা যাননি কেউ। আর কম আত্মহত্যাপ্রবণতায় পঞ্চম অবস্থানে রয়েছে হবিগঞ্জ জেলা। সেখানে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন ছয়জন। জীবিত উদ্ধার পাঁচজন। এছাড়া কম আত্মহত্যাপ্রবণ জেলাগুলোর মধ্যে রয়েছে যথাক্রমে নড়াইল, পিরোজপুর, চুয়াডাঙ্গা, সুনামগঞ্জ ও সিলেট।
দেশের বিভাগীয় শহরগুলোর মধ্যেও আত্মহত্যাপ্রবণতার তালিকায় শীর্ষে রয়েছে ঢাকা মেট্রোপলিটন। গত দুই বছরে এখানে আত্মহত্যা চেষ্টা করেন ১ হাজার ৩৯ জন। বেঁচে গিয়েছেন ৬১৪ জন। চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটনে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন ২৩৮ জন। এর মধ্যে ১৫০ জনকে বাঁচানো সম্ভব হয়েছে। রাজশাহী মেট্রোপলিটন (আরএমপি) এলাকায় আত্মহত্যার চেষ্টা করেন ৫৬ জন। এর মধ্যে জীবিত উদ্ধার হয়েছেন ৩৮ জন।
আত্মহত্যাপ্রবণতা সবচেয়ে বেশি থাকে বছরের শেষ ছয় মাসে। পুলিশের তথ্য বলছে, গত দুই বছরের মধ্যে জানুয়ারিতে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন ২৮০ জন, ফেব্রুয়ারিতে ২৯৩, মার্চে ৩৪৬, এপ্রিলে ২৭৯ ও মে মাসে ২৯৪ জন। বছরের শেষ ছয় মাসের তথ্য অনুযায়ী গত দুই বছরে জুনে ৩১৬ জন, জুলাইয়ে ৩১৫, আগস্টে ৩২৮, সেপ্টেম্বরে ৩৮১, অক্টোবরে ৩৭২, নভেম্বরে ৩৫০ ও ডিসেম্বরে ৩৬২ জন আত্মহত্যার চেষ্টা করেন।

 

নিউজটি শেয়ার করুন..


Leave a Reply

Your email address will not be published.

পুরোনো খবর এখানে,তারিখ অনুযায়ী

MonTueWedThuFriSatSun
     12
17181920212223
24252627282930
       
2930     
       
    123
       
   1234
26272829   
       
293031    
       
    123
25262728293031
       
  12345
27282930   
       
      1
9101112131415
3031     
    123
45678910
11121314151617
252627282930 
       
 123456
78910111213
28293031   
       
     12
3456789
24252627282930
31      
   1234
567891011
19202122232425
2627282930  
       
293031    
       
  12345
6789101112
       
  12345
2728     
       
      1
3031     
   1234
19202122232425
       
293031    
       
    123
45678910
       
  12345
27282930   
       
14151617181920
28      
       
       
       
    123
       
     12
31      
      1
2345678
16171819202122
23242526272829
3031     
     12
3456789
10111213141516
17181920212223
242526272829 
       
© All rights reserved © 2021 dainikkushtia.net
Design & Developed BY Anamul Rasel